1. admin@samokalbarta.com : admin :
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৫:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মাগুরার রেললাইন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের সাথে যুক্ত হবে- রেলমন্ত্রী  মাগুরায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী ফিলিস্তিনে  ইসরায়েলী  নৃশংস গণহত্যা বন্ধের দাবিতে মাগুরায়  সমাবেশ অনুষ্ঠিত মাগুরায় কমিউনিটি ক্লিনিক উদ্বোধন করলেন সাকিব আল হাসান মাগুরায় আফজাল হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন মাগুরায় অংকে ফেল করায় এক এসএসসি পরীক্ষার্থী ছাদ থেকে লাফ দিয়ে গুরুতর আহত। মাগুরার শ্রীপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, কার্যালয় ও মোটর সাইকেল ভাংচুর ২য় ধাপে মাগুরায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে শালিখা  ও মহম্মদপুর উপজেলার  ২৭ প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ মাগুরা জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন সেল কর্তৃক মোবাইল ও টাকা উদ্ধারপূর্বক হস্তান্তর  পুলিশের ধাওয়ায় প্রাণ গেল মটরসাইকেল আরোহীর

মাগুরায় অপচিকিৎসায় এক নারীর মৃত্যু ৩০ হাজার টাকায় দফারফার অভিযোগ

আজকের মাগুরা ডেক্স
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১৭৮ বার পঠিত

মাগুরায় আলসাবা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডাক্তার রাকিবুল ইসলাম এর অপচিকিৎসায় সাবিনা (২৭)নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে । নিহত সাবিনার স্বামী মনিরুল ইসলামের ভাই আজিজুল ইসলাম জানান, বুধবার সকাল ছয়টায় সিজারিয়ান অপারেশনের জন্য মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের রাহাতপুর গ্রামের মোঃ মনিরুল ইসলামের স্ত্রী মোছাঃ সাবিনা খাতুন ভর্তি হন আলসাবা ক্লিনিকে । এ

সময় ডাক্তার রাকিবুল ইসলাম সিজারিয়ান অপারেশনের সিদ্ধান্ত নিয়ে সকাল সাড়ে সাতটায় সাবিনা খাতুনকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে সিজার করেন এবং একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। সন্তান সুস্থ থাকলেও মায়ের আর ব্লিডিং বন্ধ হয় না একপর্যায়ে রোগীর স্বজনদের না জানিয়ে দুই-তিনব্যাগ রক্ত দিয়ে রোগীকে সুস্থ করার চেষ্টা করে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ। এভাবে সারাদিন ব্লিডিং বন্ধ না হওয়ায় বিকাল ৫ টায় রোগীর নিশ্চিত মৃত্যু জানতে পেরে তড়িঘড়ি করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে রেফার্ড করা হয়। সাবিনা কে নিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন। অভিযোগ আছে ডাক্তার রাকিবুল ইসলাম রোগীকে আল্ট্রাসাউন্ড না করেই অপারেশন করেন। উল্লেখ্য এক পর্যায়ে রোগী স্বজনরা অ্যাম্বুলেন্সে করে আলসাবা

ক্লিনিকের সামনে হট্টগল শুরু করলে ক্লিনিক মালিক সমিতির মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকায় দফারফার হয় বলে জানা গেছে।

জানতে চাইলে সিভিল সার্জন ডাক্তার শামীম কবে জানান, তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে ডাক্তার ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের অবহেলা এবং অপোচিকিৎসা হইলে আইন আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ডাক্তার রাকিবুল ইসলাম এর সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা