1. admin@samokalbarta.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাগুরায় ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনামূলক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ সম্পন্ন  জমকালো আয়োজনে মাগুরায় দৈনিক গণমুক্তির ৫০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত  মাগুরায় চোরাই প্রাইভেটকারসহ আন্ত: জেলা ডাকাত দলের ২ সদস্য আটক মাগুরায় প্রবাসী লেখক এম ইসলাম মাসুদের মতবিনিময় ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  মাগুরায় স্বাস্থ্যখাতে অব্যবস্থাপনা দূর করা সহ ১১ দফা দাবিতে গনকমিটির সমাবেশ অনুষ্ঠিত  অসহায় শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ালেন কাউন্সিলর সাকিব হাসান তুহিন  মাগুরায় বিশ্ববিদ্যালয় কেন প্রয়োজন? মাগুরায় বিশ্ববিদ্যালয় কেন প্রয়োজন? সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের নামে থানায় অভিযোগঃডিইউজের প্রতিবাদ মাগুরা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিশিষ্ট সাংবাদিক এ্যাডঃ মনির ও এ্যাডঃ বাণীব্রত কুন্ডুর জয়লাভ

মাগুরায় বিদ্যুতের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশ

আজকের মাগুরা ডেস্ক
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৫ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ৩১ বার পঠিত

বিদ্যুতের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট মাগুরা জেলার উদ্যোগে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ ১৫ জানুয়ারি ২০২৩ সকাল ১১টায় চৌরঙ্গী মোড়ে মাগুরা জেলা প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাম গণতান্ত্রিক জোট মাগুরা জেলার সমন্বয়ক ও বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা শিক্ষাবিদ কাজী নজরুল ইসলাম ফিরোজ। সমাবেশ পরিচালনা করেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ মাগুরা জেলা আহ্বায়ক প্রকৌশলী শম্পা বসু। বক্তব্য প্রদান করেন, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি মাগুরা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এটিএম আনিসুর রহমান।

আবার বাড়ানো হলো বিদ্যুতের দাম; ভোক্তা পর্যায়ে ৫%। গতবছর ২০২২ সালের জুনে বেড়েছে গ্যাসের দাম, আগস্টে বেড়েছিল জ্বালানি তেলের দাম, ২১ নভেম্বর বেড়েছিল পাইকারি বিদ্যুতের দাম আর ১২ জানুয়ারি ২০২৩ সালে নববর্ষের উপহার হিসেবে বাড়ল খুচরাপর্যায়ে বিদ্যুতের দাম। এর প্রভাব পড়বে জীবনযাপনের সব ক্ষেত্রে। খরচ বাড়বে উৎপাদনের এবং সাধারণভাবে বাড়বে সব জিনিসের দাম।

বিদ্যুৎ খাতে চলছে অপচয় ও মহাদুর্নীতি। এ কারণে বার বার বাড়ানো হচ্ছে বিদ্যুতের দাম। এই অযৌক্তিক দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেছেন বাম গণতান্ত্রিক জোট মাগুরা জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। বাম জোটের নেতারা বলেন, অযৌক্তিকভাবে বেশি খরচে বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। অনেক বিদ্যুৎকেন্দ্র বসিয়ে রেখে অহেতুক ভাড়া দেওয়া হচ্ছে। এ জন্য বছরে হাজার হাজার কোটি টাকা নষ্ট করা হচ্ছে। দেশি-বিদেশি লুটেরা ও কমিশনভোগীদের পকেট ভারি হচ্ছে। বিদ্যুৎ খাতে এই দুর্নীতি, অপচয় ও সিস্টেম লস দূর করা হয়নি। এ অবস্থায় খরচ বেড়েছে বলে বিদ্যুতের দাম যে বাড়ানো হয়েছে, তা অন্যায্য, অন্যায় ও অনৈতিক।

বিদ্যুতের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার, রেন্টাল-কুইক রেন্টাল বিদ্যুতকেন্দ্র ও জ্বালানি ক্ষেত্রে দায়মুক্তি আইন বাতিল, দুর্নীতি, অপচয় তথা সিস্টেম লসের নামে চুরি বন্ধ, ভুলনীতি পরিহার এবং জ্বালানি ক্ষেত্রে দুর্নীতির শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানান হয় ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা